কবিতা

রঙমশালের স্রোত

রঙমশালের স্রোত- পার্থ মল্লিক কবিতায় তার যাপিত জীবনের প্রতিচ্ছবি তুলে এনেছে। কোথাও তার হাসি কে বৃষ্টিতে ভিজিয়ে এনে মেঘের আদরে গান শুনিয়েছেন আবার কোথাও রঙ অন্ধ কোন অজানা রোগে ভুলে গেছেন।

গদ্য

কাগজের ছুরি

একটি ধনেশপাখি শহরতলির টেলিগ্রাফের তারে বসে যাবতীয় কর্তৃত্ব গ্রহণ করার পর তারা পাখিটির অধীনে উন্নতি লাভ করতে শুরু করে। গানের শব্দের মতো এইখানে তার রাজত্ব করে। আর আমি উদ্ভটচোখে পাখিটির কর্তৃত্ব গ্রহণ করতে বিস্তারিত হই। শহরতলিতে রাত্রি খুলছে তার অন্ধকার নখর আর রুপালি বিভ্রম। আর তাই তারা একটি নতুন আলো ক্রয় করে। আর অন্যান্যরা খুব […]

বই নিয়ে

রঙমশালের স্রোত

রঙমশালের স্রোত- পার্থ মল্লিক কবিতায় তার যাপিত জীবনের প্রতিচ্ছবি তুলে এনেছে। কোথাও তার হাসি কে বৃষ্টিতে ভিজিয়ে এনে মেঘের আদরে গান শুনিয়েছেন আবার কোথাও রঙ অন্ধ কোন অজানা রোগে ভুলে গেছেন।

দাঁড়ানোর সীমানা

দাঁড়ানোর সীমানা – শিমুল মাহমুদের ভাত খাওয়ার শব্দ পান্ডুলিপির নির্বাচিত কবিতা। কবিতায় কবি মানুষের ভেতরের মানুষকে আবিষ্কার করবার চেষ্টা করেছেন। যেখানে মানুষের সমতাহীন সমাজ ব্যবস্থার প্রতিচিত্র নির্মান করেছে তার প্রতিটি কবিতায়।

গোগা

গোগা- মূল অসমীয়া গল্প, ভাস্কর ঠাকুরীয়া,অনুবাদক -বাসুদেব দাস জনপ্রিয় গল্পটি বাংলায় অনুবাদ করেছেন অত্যন্ত সচেতন ভাবে।মূল গল্পটির ভাব ঠিক রাখার চেষ্টা তিনি করেছেন।
কিন্তু বলেছেন আমাদের দৈনন্দিন ব্যবহৃত ভাষায়

মানবের পদচিহ্ন

মানবের পদচিহ্ন -গৌতম কৈরী তার কবিতায় ক্রমাগত যে নির্মিতির দিকে যাচ্ছে তার প্রমাণ কবিতায় সুস্পষ্ট। কবিতা পাঠে আমরা তার অনুচ্চারিত শব্দমালা দেখতে পাই,যা গৌতম পদচিহ্ন হিসেবে বাংলা কবিতায় রেখে যেতে চায়।

Smart Box

পোষ্ট

গানের ভেতরে এখনো আছে বেঁচে থাকার মানে

যাত্রার বিবেক গানে অনিবার্যই ছিলেন গৌরাঙ্গ আদিত্য। আলোকিত যাত্রাযুগে উজ্জ্বল মঞ্চে দর্শকের বিবেককে স্পর্শ করেছিলো গৌরাঙ্গের গান ও গায়কী।  বাংলার মানুষ গান শুনে কাঁদে।  গাইতে গাইতে কাঁদে।  সেবা ও সহমর্মিতায়, প্রেম ও মিলনাকাক্সক্ষায়, আধাত্ম-প্রেম ও আচারিক প্রার্থনায় বাঙালির ঘরে সকাল-সন্ধ্যা গান বাজে। এই গান অন্তরজাত। মাটিজাত। গান গাইতে গাইতে সহজ বাঙালি সহজে অধরা ধরেন। পাপ […]

পোষ্ট

গানের ভেতরে এখনো আছে বেঁচে থাকার মানে

যাত্রার বিবেক গানে অনিবার্যই ছিলেন গৌরাঙ্গ আদিত্য। আলোকিত যাত্রাযুগে উজ্জ্বল মঞ্চে দর্শকের বিবেককে স্পর্শ করেছিলো গৌরাঙ্গের গান ও গায়কী।  বাংলার মানুষ গান শুনে কাঁদে।  গাইতে গাইতে কাঁদে।  সেবা ও সহমর্মিতায়, প্রেম ও মিলনাকাক্সক্ষায়, আধাত্ম-প্রেম ও আচারিক প্রার্থনায় বাঙালির ঘরে সকাল-সন্ধ্যা গান বাজে। এই গান অন্তরজাত। মাটিজাত। গান গাইতে গাইতে সহজ বাঙালি সহজে অধরা ধরেন। পাপ […]

পোষ্ট

গানের ভেতরে এখনো আছে বেঁচে থাকার মানে

যাত্রার বিবেক গানে অনিবার্যই ছিলেন গৌরাঙ্গ আদিত্য। আলোকিত যাত্রাযুগে উজ্জ্বল মঞ্চে দর্শকের বিবেককে স্পর্শ করেছিলো গৌরাঙ্গের গান ও গায়কী।  বাংলার মানুষ গান শুনে কাঁদে।  গাইতে গাইতে কাঁদে।  সেবা ও সহমর্মিতায়, প্রেম ও মিলনাকাক্সক্ষায়, আধাত্ম-প্রেম ও আচারিক প্রার্থনায় বাঙালির ঘরে সকাল-সন্ধ্যা গান বাজে। এই গান অন্তরজাত। মাটিজাত। গান গাইতে গাইতে সহজ বাঙালি সহজে অধরা ধরেন। পাপ […]

(119)