Home নীহার লিখন

নীহার লিখন

জন্মঃ ৩ অক্টবর, ১৯৮৪, শিববাড়ী শেরপুর। বসবাস করেন ময়মনসিংহে, পেশাজীবনে একটি বেসরকারি কলেজে অধ্যাপনা করেন।
বহুমাত্রিক শিল্পমাধ্যম নিয়ে কাজ করেন, মূলত কবি, গদ্যকার, অনুবাদক।
প্রকাশিত কাব্যগ্রন্থঃ ব্রহ্মপুত্র, আমি আপেল নীরবতা বুঝি, ব্ল্যাকহোল ও পড়শিবাড়ি, পিনাকী ধনুক, মনসিজ বাগানের শ্বেত।
অনুবাদ ও কথাসাহিত্য নিয়েও কাজ করেন। ইতোমধ্যে অনুবাদ করেছেন মিরোস্লাভ হলুভ, জন এশবেরী, ইবসেন, ইয়াং লি সহ অনেকের কবিতা।
বাই লিংগুয়াল এই কবির মৌলিক ইংরেজী কবিতাও ইতোমধ্যে দেশ ও দেশের বাইরে জার্মানি,আয়ারল্যান্ড সহ বিভিন্ন দেশের সংকলনে সংকলিত হয়েছে। তাঁর কবিতা অনুদিত হয়েছে রুশ, ইংরেজী ভাষাতেও বয়ান সহ বেশ কিছু পত্রপত্রিকা ও ছোটকাগজে তাঁর গল্প প্রকাশিত হয়েছে। প্রথম উপন্যাস ‘মধুপুর’ প্রকাশের অপেক্ষায়।

জলঘুমে অথরা : নিভৃতির মরমী ভূবন

বাংলা কবিতার খুব বৈভবশালী আর স্ফুর্ত একটি ধ্যান বা ধারার ভূখণ্ডটি যেন প্রকৃতি, এবং তাকে আশ্রয় বা তুল্য হিসেবে ধরে চিন্তা ও নন্দনে সঞ্চারিত হওয়া। এই প্রবণতাটিকে যদি বাংলা কাব্যের মূল হিসেবেও বিবেচনা করা হয়, খুব একটা ভুল কী আর হবে!

গলে যাচ্ছি মাটির সাথেই

পরমায়ু পেঁয়াজের খোসার মতো নিজেকে খুলতে খুলতে দেখি শেষতক আর কিছু না,অপেক্ষমাণ খোসাগুলোই জমে আছে,সময়ের শরীর থেকেও যদি অনুরূপ খুলে নেই সমূহ ভ্রমণ; শেষতক শুন্যই জমাটবদ্ধ এক বিশীর্ণ লতাটির মতো জড়িয়ে রয়েছে ফাঁকে বুলটি তোলা কোনো মাছের ওষ্ঠ থেকে নির্গত বায়ুটির মীর জীবনও এমনই, পরমায়ু বলে যদি ধরে নেয়া যায় তাকে প্রবল এক সত্যের স্বরূপ, […]