উর্ণাজাল

উর্ণাজাল-মোহাম্মদ জসিম তার কবিতায় শব্দের পেছনে যে নির্মিতি সেখানে বসে থাকেন,যতক্ষণ অন্তর্গত অন্তর্জাল ছিঁড়ে বেড়িয়ে আসা শিল্পিক নির্মাণ যথাযথ প্রকাশ না হয়। আমরা তার কবিতায় সেই আবহ বারবার টপর পাই।

বাংলা সাহিত্যে কবিদের উপাধি ধারণ

বাংলা সাহিত্যে কবিদের উপাধি ধারন- মজিদ মাহমুদ তার প্রবন্ধে রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর,করমচাঁদ গান্ধী,কাজী নজরুল ইসলাম থেকে শুরু করে আল মাহমুদ,সৈয়দ শামসুল হক,নূরুল হুদা থেকে মজিদ মাহমুদ পর্যন্ত টেনে এনেছেন। কিভাবে একেকজন স্ব স্ব উপাধি ধারন করে কিংবদন্তি হয়েছেন।

রঙমশালের স্রোত

রঙমশালের স্রোত- পার্থ মল্লিক কবিতায় তার যাপিত জীবনের প্রতিচ্ছবি তুলে এনেছে। কোথাও তার হাসি কে বৃষ্টিতে ভিজিয়ে এনে মেঘের আদরে গান শুনিয়েছেন আবার কোথাও রঙ অন্ধ কোন অজানা রোগে ভুলে গেছেন।

দাঁড়ানোর সীমানা

দাঁড়ানোর সীমানা - শিমুল মাহমুদের ভাত খাওয়ার শব্দ পান্ডুলিপির নির্বাচিত কবিতা। কবিতায় কবি মানুষের ভেতরের মানুষকে আবিষ্কার করবার চেষ্টা করেছেন। যেখানে মানুষের সমতাহীন সমাজ ব্যবস্থার প্রতিচিত্র নির্মান করেছে তার প্রতিটি কবিতায়।

গোগা

গোগা- মূল অসমীয়া গল্প, ভাস্কর ঠাকুরীয়া,অনুবাদক -বাসুদেব দাস জনপ্রিয় গল্পটি বাংলায় অনুবাদ করেছেন অত্যন্ত সচেতন ভাবে।মূল গল্পটির ভাব ঠিক রাখার চেষ্টা তিনি করেছেন। কিন্তু বলেছেন আমাদের দৈনন্দিন ব্যবহৃত ভাষায়

মানবের পদচিহ্ন

মানবের পদচিহ্ন -গৌতম কৈরী তার কবিতায় ক্রমাগত যে নির্মিতির দিকে যাচ্ছে তার প্রমাণ কবিতায় সুস্পষ্ট। কবিতা পাঠে আমরা তার অনুচ্চারিত শব্দমালা দেখতে পাই,যা গৌতম পদচিহ্ন হিসেবে বাংলা কবিতায় রেখে যেতে চায়।

প্রকৃত অর্থে কবিতার জন্যে কবিতা আর কবিই মুখ্য, কোন দশক জরুরী না

নীহার লিখন, একাধারে কবি, ঔপন্যাসিক, অনুবাদক, প্রাবন্ধিক। বহুমুখী, প্রতিভাবান এই কবি বাংলা শিল্পসাহিত্যের জগতে সাম্প্রতিক সময়ের এক উজ্বল মুখ, ইতোমধ্যে যার ৬ টি কাব্যগ্রন্থ প্রকাশিত হয়েছে, যার প্রতিটি ভিন্ন ভিন্ন ভাব ও ভিন্ন বিষয়ের নির্মিতি ব্যাঞ্জনায় অনন্যসাধারণ হয়ে দাগ কেটেছে পাঠক হৃদয়ে, বোদ্ধাশ্রেনীর মন ও মননে।

কাগজের ছুরি

একটি ধনেশপাখি শহরতলির টেলিগ্রাফের তারে বসে যাবতীয় কর্তৃত্ব গ্রহণ করার পর তারা পাখিটির অধীনে উন্নতি লাভ করতে শুরু করে। গানের শব্দের মতো এইখানে তার রাজত্ব করে। আর আমি উদ্ভটচোখে পাখিটির কর্তৃত্ব গ্রহণ করতে বিস্তারিত হই। শহরতলিতে রাত্রি খুলছে তার অন্ধকার নখর আর রুপালি বিভ্রম। আর তাই তারা একটি নতুন আলো ক্রয় করে। আর অন্যান্যরা খুব […]

কুর্নিশ করে যায় মেঘ

ঋণ স্বীকার উড়ে যেতে যেতে এই গ্রামে কুর্নিশ করে যায় মেঘ— তার নিচে সুপারির বাকলে ঘেরা বাড়ি— এখানে, ছোট ছোট ঘরের পাশে কেয়া আর কেওড়ার বন— মেঘের বিপরীতে বনটিয়ে উড়ে যায় যদি, আমি তার পিছে পিছে চলি— ও মেঘ, জল আগুন আর শব্দ কীভাবে এক দেহে রাখো— আমাকে কি সেই বিদ্যা দেবে— দেখো, এই গেঁয়ো […]